মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ মে ২০২০

ছয়টি উন্নয়নমূলক কাজের জন্য পিজিসিবি’র চুক্তি সই


প্রকাশন তারিখ : 2020-05-18
করোনা ভাইরাসের কারণে চলমান সাধারণ ছুটির মধ্যেও বিদ্যুতের জরুরি কাজসমূহ সচল রেখেছে পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী অব বাংলাদেশ লিঃ (পিজিসিবি)। সোমবার (১৮ মে ২০২০ খ্রিঃ) পিজিসিবি’র ঢাকাস্থ প্রধান কার্যালয়ে সামাজিক দুরত্বের নিয়ম ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পিজিসিবি’র কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণের মধ্যে উন্নয়ন কাজের জন্য পৃথক ছয়টি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এসব প্রকল্পের আওতায় নতুন গ্রীড সাবস্টেশন ও সঞ্চালন লাইন নির্মাণ এবং পুরাতন লাইনের রিকন্ডাক্টরিং (তার পরিবর্তন) করা হবে। সবগুলো কাজের জন্যই উম্মুক্ত টেন্ডার (আন্তর্জাতিক) প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যোগ্য প্রতিষ্ঠান বাছাই এবং চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। আশুগঞ্জে নতুন ১৩২ কেভি জিআইএস গ্রীড সাবষ্টেশন নির্মাণ কাজের জন্য পিজিসিবি এবং চায়না ন্যাশনাল টেকনিক্যাল ইমপোর্ট এন্ড এক্সপোর্ট করপোরেশনের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। এ কাজের চুক্তিমূল্য ১৭৭ কোটি টাকা (প্রায়)। আগামী ২৭ মাসের মধ্যে এ কাজ শেষ করা হবে। দেশের বিভিন্ন স্থানে ১৪০ কিলোমিটার নতুন সঞ্চালন লাইন নির্মানে পিজিসিবি এবং এইচজি পাওয়ার ট্রান্সমিশন এর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। চুক্তি মোতাবেক আগামী ৩০ মাসের মধ্যে এ কাজগুলো শেষ করা হবে। এতে ব্যয় হবে ১৬৩ কোটি টাকা (প্রায়)। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে আরও ৮১ কিলোমিটার সঞ্চালন লাইন নির্মানে পিজিসিবি এবং এইচজি পাওয়ার ট্রান্সমিশনের মধ্যে আরেকটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ কাজে ব্যয় হবে ১৩৭ কোটি টাকা (প্রায়)। আগামী ২৪ মাসের মধ্যে এ চুক্তির আওতাধীন কাজগুলো শেষ করা হবে। পৃথক চুক্তিতে এফজেইসি-এফইপিইসি যৌথ উদ্যোগ প্রতিষ্ঠানকে ৩০ কিলোমিটার সঞ্চালন লাইন নির্মাণের কাজ দিয়েছে পিজিসিবি। আগামী ২৪ মাসের মধ্যে এ কাজ শেষ করতে হবে। ময়মনসিংহ হতে জামালপুর সঞ্চালন লাইনের ৪৬ কিলোমিটার অংশে রিকন্ডাক্টরিং কাজের জন্য এফজেইসি-এফইপিইসি যৌথ উদ্যোগ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আরেকটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে পিজিসিবি। প্রায় ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে আগামী ১২ মাসের মধ্যে এ কাজটি সম্পন্ন হবে। রূপপূরে নির্মাণাধীন পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য সোর্স/ব্যাকফিড বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে রূপপূর-বাঘাবাড়ি ২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। এ কাজের জন্য কেইসি ইন্টারন্যাশনালের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে পিজিসিবি। আগামী ১৮ মাসের মধ্যে প্রায় ২৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে এই লাইনটি নির্মাণ করা হবে। লাইনটি চালু হলে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ সংশ্লিষ্ট কাজের জন্য প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

Share with :

Facebook Facebook